skip to Main Content
বুধবার, ২৮ রবিউস-সানি ১৪৩৯ হিজরী,১৭ জানুয়ারি ২০১৮ ইং
রাত ১:০২
জামিয়ার ফান্ডসমূহ

সমাজের সর্বস্তরের ছাত্র-ছাত্রী যেন দ্বীনি তা‘লীম অর্জনের সুযোগ পায়, সে দিকটি বিবেচনা করে এখানে সর্বস্তরের ছাত্র-ছাত্রীকে ভর্তি করা হয়। সামর্থ্যবান অভিভাবকগণ মাসিক ধার্যকৃত খরচ পূর্ণ বহন করেন। যাদের পক্ষে পূর্ণ খরচ বহন সম্ভব হয় না, তাঁরা আলোচনা সাপেক্ষে তাওফিক অনুযায়ী খরচ বহন করেন। বাকি খরচ মাদরাসার জেনারেল ফান্ড থেকে বহন করা হয়।

জেনারেল ফান্ড

এটি প্রতিষ্ঠানের মূল ফান্ড। এ ফান্ডের মূল আয় হল অভিভাবক কর্তৃক মাসিক প্রদেয় খরচ ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের সাধারণ জমাকৃত দান। এছাড়া যাকাত, ফিতরা, কাফফারা, সাদকায়ে ওয়াজিবা, কুরবানির চামড়ার মূল্য ইত্যাদি ফান্ডের টাকা ও দানকৃত অন্যান্য বস্তুসামগ্রী খুব সতর্কতার সাথে শরীয়তসম্মত তরীকায় উপযুক্ত পদ্ধতি অবলম্বন করে জেনারেল ফান্ডে জমা করা হয়। অতঃপর এ ফান্ড থেকে মাদরাসার শিক্ষা, আবাসিক ও বোর্ডিং খাতে ব্যয় করা হয়। যেন সকল ছাত্র-ছাত্রীকে একই মানের পরিবেশে রেখে তা‘লীম ও তারবিয়াত দেওয়া সম্ভব হয়।

সাদকায়ে ওয়াজিবা (উমূমী) ফান্ড

এটি প্রতিষ্ঠানের মূল ফান্ড। এ ফান্ডের মূল আয় হল অভিভাবক কর্তৃক মাসিক প্রদেয় খরচ ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের সাধারণ জমাকৃত দান। এছাড়া যাকাত, ফিতরা, কাফফারা, সাদকায়ে ওয়াজিবা, কুরবানির চামড়ার মূল্য ইত্যাদি ফান্ডের টাকা ও দানকৃত অন্যান্য বস্তুসামগ্রী খুব সতর্কতার সাথে শরীয়তসম্মত তরীকায় উপযুক্ত পদ্ধতি অবলম্বন করে জেনারেল ফান্ডে জমা করা হয়। অতঃপর এ ফান্ড থেকে মাদরাসার শিক্ষা, আবাসিক ও বোর্ডিং খাতে ব্যয় করা হয়। যেন সকল ছাত্র-ছাত্রীকে একই মানের পরিবেশে রেখে তা‘লীম ও তারবিয়াত দেওয়া সম্ভব হয়।

উন্নয়ন ফান্ড

উন্নয়ন ফান্ড মাদরাসার নির্মাণবিষয়ক ফান্ডকে বলা হয়। এ ফান্ডে সামর্থ্যবান অভিভাবক ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ নিজেদের পক্ষ থেকে মাসিক নির্ধারিত অনুদান ও সাদকায়ে জারিয়ার দান উন্নয়নমূলক কাজের কথা উল্লেখ করে জমা করে থাকেন। মাদরাসার নির্মাণ ও উন্নয়ন বিষয়ক কার্যক্রম এ ফান্ড থেকেই করা হয়। এ ফান্ডে যারা নিয়মিত শরীক থাকতে চান, তারা মাদরাসার ‘কাফেলায়ে সাহবান’ ফরমের মাধ্যমে নিজেদেরকে শরীক করে থাকেন।

করযে হাসানা ফান্ড

মাদরাসার নির্মাণ ও উন্নয়নমূলক কাজের গতি ধরে রাখার জন্য এ ফান্ডে ‘করযে হাসানা’ স্বরূপ মেয়াদী ঋণ গ্রহণ করা হয়, যা পরবর্তীতে সময়মতো উন্নয়ন ফান্ড থেকে পরিশোধ করে দেওয়া হয়।

আপ্যায়ন ফান্ড

মাদরাসার বার্ষিক বিভিন্ন প্রোগ্রামে আমন্ত্রিত মেহমানবৃন্দের আপ্যায়ন ও বিভিন্ন সময় মাদরাসার সাথে সম্পৃক্ত আগত মেহমানদের যাবতীয় আপ্যায়ন এ ফান্ড থেকে করা হয়। মাদরাসার অভিভাবক ও হিতাকাক্সক্ষীরা আপ্যায়ন রশিদের মাধ্যমে এ ফান্ডে অংশগ্রহণ করে থাকেন। উল্লেখ্য যে, এ ক্ষেত্রে মাদরাসার জেনারেল ফান্ড ব্যবহার করা হয় না।

Back To Top